নবাগত অধ্যক্ষ অধ্যাপক হাকীম কামরুন নাহার হারুন এর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

Admission
September 7, 2022

নবাগত অধ্যক্ষ অধ্যাপক হাকীম কামরুন নাহার হারুন এর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

২১-১১-২২ ইং রোজ সোমবার সকাল ১০ ঘটিকায় রওশন জাহান ইস্টার্ণ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল (ইউনানী), লক্ষ্মীপুর এর সম্মেলন কক্ষে অত্র কলেজের নবাগত অধ্যক্ষের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও চীফ মোতাওয়াল্লী এবং রওশন জাহান ইস্টার্ণ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল (ইউনানী), লক্ষ্মীপুর -এর প্রতিষ্ঠাতা, বাংলাদেশের আধুনিক হামদর্দ-এর রূপকার ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক জগতের জীবন্ত কিংবদন্তি আলহাজ্ব ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশ এর সম্মানিত সিনিয়র পরিচালক অর্থ ও হিসাব জনাব মোঃ আনিসুল হক, সম্মানিত পরিচালক মার্কেটিং জনাব মোঃ শরিফুল ইসলাম এবং সম্মানিত উপ-পরিচালক প্রসাশন ও এস্টেট জনাব মোঃ মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রওশন জাহান ইস্টার্ণ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল (ইউনানী), লক্ষ্মীপুর -এর উপদেষ্টা ডাঃ আশফাকুর রহমান মামুন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চলনা করেন অত্র কলেজের উপাধ্যক্ষ ডাঃ মোঃ সাইফুল ইসলাম চৌধুরী। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অত্র এলাকার ইউ.পি চেয়ারম্যানসহ অন্যান্য বিশেষ ব্যক্তিবর্গ, ওলামায়ে কেরামগণ ও অত্র এলাকার জনসাধারণ ।
উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথিসহ অনুষ্ঠানের সভাপতি, রওশন জাহান ইস্টার্ণ মেডিকেল কলেজ-এর নবনিযুক্ত অধ্যক্ষ,বিশেষ অতিতি বৃন্দসহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলায়াত করেন ডিইউএমএস-৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী মোঃ আব্দুর রহমান। এরপর আগত অতিথি ও নবনিযুক্ত অধ্যক্ষকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন অত্র অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও সভাপতি মহোদয় এরপর অত্র কলেজের শিক্ষক শিক্ষিকা কর্মকর্তা কর্মচারী শিক্ষার্থী এবং এলাকাবাসীর পক্ষথেকে নবাগত অধ্যক্ষকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। অনুষ্ঠানের অধ্যক্ষ, প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দকে সম্মাননা স্মারক ক্রেস্ট প্রদানের মাধ্যমে সংবর্ধিত করা হয়।
নবনিযুক্ত অধ্যক্ষ বলেন, ‘‘আমি এই কলেজে অধ্যক্ষ হিসাবে যোগদান করে অত্যন্ত আনন্দিত।” তিনি আরও বলেন ”এই কলেজের নামকরন করা হয় আমার শাশুড়ির নামে যিনি ছিলেন একজন রত্নগর্ভা যার কৃতি সন্তান ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া। তিনি এই কলেজ প্রতিষ্ঠা করে অত্র এলাকায় ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক মেডিকেল শিক্ষা ও চিকিৎসার প্রসার ঘটিয়েছেন। আমি এই কলেজে অধ্যক্ষ হিসাবে আমার দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করে এই কলেজের শিক্ষার মান আরও উন্নত করে এগিয়ে নিয়ে যাব ইনশাআল্লাহ।” তিনি এলাকাবাসীদের প্রতি সহযোগিতার আহবান জানান।
অনুষ্ঠানের সভাপতি তাঁর বক্তব্যে বলেন ,“আমি দীর্ঘদিন ধরে আলহাজ্ব ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়ার সাথে এক যোগে কাজ করেছি। হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ এর ঔষধ খুবই উন্নত ও বিশ্বমানের এ্যলোপ্যাথিকের পাশাপাশি এখন ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক ঔষধ সমান ভাবে জনপ্রিয় এবং উন্নত। দীর্ঘদিন এ্যলোপ্যাথিকের ব্যবহার অনেক মারত্মক ক্ষতিকর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিন্তু ইউনানী ঔষধ এর কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।” তিনি সকলকে ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক ঔষধ সেবনের প্রতি আহবান জানান। এবং অত্র কলেজের সার্বিক মঙ্গল কামনা করেন।
অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও চীফ মোতাওয়াল্লী এবং রওশন জাহান ইস্টার্ণ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল (ইউনানী) লক্ষ্মীপুর – এর প্রতিষ্ঠাতা বাংলাদেশের আধুনিক হামদর্দ-এর রূপকার ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক জগতের জীবন্ত কিংবদন্তি আলহাজ্ব ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া। তিনি বলেন,“আমি তোমাদের মাঝে আসতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত। আমি চাই আমার এলাকার ছেলে মেয়ে এই কলেজের ব্যাচেলর এমবিবিএস সমমানের ডিগ্রি নিয়ে এলাকা তথা সারা বাংলাদেশে চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত থাকুক। এই জন্য কলেজটি আমার মা এর নামে আমি নিজ এলাকায় প্রতিষ্ঠিত করেছি। বিভিন্ন জায়গা থেকে মেধাবী ছাত্র ছাত্রীরা এখানে এসে তাদের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল করবে আমি এই আশাাই করি। আমি এই কলেজ থেকে সবার জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ দিয়ে থাকি যাতে নিজ এলাকার সকল মানুষের চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ এর কোন ঘাটতি না হয়।” তিনি আরও বলেন গত করোনা মহামারিতে অনেক ডাক্তার ও সাধারন মানুষ মারা গেছে কিন্তু হামদর্দ এর কুলজম ব্যবহার করে অনেকই করোনা থেকে রক্ষা পেয়েছেন। তিনি এলাকাবাসীদের প্রতি এবং সর্বস্তরের মানুষের প্রতি সহযোগিতার আহবান জানান এবং এই ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক শিক্ষা ও রওশন জাহান ইস্টার্ণ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল (ইউনানী) লক্ষ্মীপুর কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।
সর্বশেষ দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে অত্র কলেজের সার্বিক মঙ্গল কামনা করে হামদর্দ পরিবারবর্গসহ ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া ও তার পরিবার বর্গের জন্য দোয়া কামনার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের পরিসমাপ্তি ঘটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *